নিষ্ক্রিয় সমাজ

152

তৌফিকুল ইসলাম

সমাজের সক্রিয়তা,এখন কেবলই মুখে ।
যত টুকু সক্রিয়তা চুষে নেবার তরে ।
দেবার বেলায় শূন্য হাতে,
অজস্র কথা বমন করে।

সমাজের প্রতি সমাজ পতিদের
দায়দায়িত্ব খাতা-কলমে পরিপূর্ণ।
দায়িত্ব পালনের কোটায় কেবলই শূন্য।

বিপদগ্রস্তের সান্তনা,উপদেশ
দেবার নেই কোন কমতি।
সাহায্য-সহযোগিতার বেলায়,
সমাজ কংস মামার ভক্তি ।

কে না খেয়ে আছে,কার ঘরে বিবাহ যোগ্য কন্যা আছে,তাতে নেই কোনো সমাজের মাথা ব্যাথা।
আছে তখনই বিচার চোরের জরিমানা ।
কথা আছে তখনই,

যখন কন্যার বয়স পঁচিশের উর্দ্ধে।
কি জানি ফষ্টিনষ্টি করে নাকি,
তা না হলে কি বিয়ে হতো না।

অথচ,যখন এক বেলা না খেয়ে দিন পার হত । সমাজের চোখ নাহি যেত।
তবুও সমাজ আছে,
থাকবেই কেবলই সন্তনা উপদেশের তরে।

Facebook Comments